• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৫ জুলাই, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৫ জুলাই, ২০২৩

হাতিয়ায় সিরাজুল আলম খান স্মরনে স্মরন সভা অনুষ্ঠিত

তাজুল ইসলাম তছলিম, উপজেলা প্রতিনিধি, হাতিয়া : হাতিয়ায় বাংলাদেশের রাজনীতির রাহস্যপুরুষ হিসেবে খ্যাত মহান মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বরেণ্য রাজনীতিবিদ সিরাজুল আলম খান দাদা ভাই এর স্মরণে স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শনিবার (১৫ জুলাই) বিকেল চারটায় রুপসী হাতিয়া রেস্তোরাঁ এন্ড পার্টি সেন্টারে মুক্তিযোদ্ধা ও শুভাকাঙ্ক্ষী বৃন্দের আয়োজনে এ স্মরন সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সাপ্তাহিক হাতিয়ার কথার প্রকাশক মাসউদুর রহমান বাবর এর সঞ্চালনায় স্মরণ সভায় বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ এনামুল হক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার খোন্দকার আবুল কালাম, হাতিয়া আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট সাজ্জাদ হোসেন, হাতিয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বিনয় ভূষন বাবুলাল, হাতিয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার কাজী আরঙ্গজেব, হাতিয়া ডিগ্রি কলেজের সাবেক প্রিন্সিপাল একেএম মানছুরুল হক কাশেম, মুক্তিযোদ্ধা মানছুরুল হক, হাতিয়া ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক নঈম শামীম খান, প্রফেসর নূর ইসলাম শরীফ, নোয়াখালী জেলা কমিউনিস্ট পার্টির সদস্য নূর আলম লেলিন, হাতিয়া কমিউনিটি কলেজের অধ্যক্ষ মামুনুর রশিদ প্রমূখ ।

স্মরন সভায় হাতিয়া মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার খোন্দকার আবুল কালাম স্মৃতিচারন করতে গিয়ে বলেন স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যে ৬২ সালে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরে যে নিউক্লিয়াস গড়ে উঠে তিনিই ছিলেন তার মূল উদ্যোক্তা। সিরাজুল আলম খান প্রায় ৭ বছর কারাভোগ করেন। তিনি ছিলেন আমাদের গুরু আমরা ছিলাম তার শিষ্য। সিরাজুল আলম খান সম্পর্কে বলে শেষ করা যাবে না, বাংলাদেশের জন্য তার অবদান অনেকে জানেন না, তাঁর সম্পর্কে সবাইকে জানানোর জন্য,তাঁর অবদান তুলে ধরার ব্যবস্থা করা দরকার।

স্মরণ সভায় সিরাজুল আলম খান (দাদা ভাই) এর বিভিন্ন স্মৃতি চারণ তুলে ধরে বক্তাতারা বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে সিরাজুল আলম খান দাদা ভাই ছিলেন, এক অকুতোভয় বীর সেনানী। বাংলাদেশ নামক একটি স্বাধীন রাষ্ট্র সৃষ্টিতে এই মহান গুরুর ভূমিকা ছিলো শীর্ষ ভাগে।

স্মরণ সভায় উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, রাজনৈতিক বিভিন্ন মতাদর্শের ব্যক্তিবর্গ এবং সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, সিরাজুল আলম খান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ৯ জুন শুক্রবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

আরও পড়ুন

  • হাতিয়া এর আরও খবর