• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৮ জুলাই, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৮ জুলাই, ২০২৩

অ্যাশেজে ইংল্যান্ডের বাঁচামরার লড়াই শুরু কাল

টেস্ট ক্রিকেটের সবচেয়ে মর্যাদার ও ঐতিহ্যবাহী আসর অ্যাশেজ। ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার এই লড়াইয়ের উত্তাপ কেবল দুই দেশেই সীমাবদ্ধ নয়। ক্রিকেটপ্রেমিরা অপেক্ষায় থাকেন তাদের লড়াই দেখতে। অনেকের ধারণা, টি-টোয়েন্টির যুগে এখনও টেস্টের উত্তাপ বাঁচিয়ে রেখেছে দুই দলের লড়াই। চলমান অ্যাশেজের প্রথম তিন ম্যাচে এই ধারণা পুরোপুরি মিথ্যা হয়নি।

আগামীকাল বুধবার (১৯ জুলাই) অ্যাশেজের চতুর্থ ম্যাচে মুখোমুখি হবে অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ড। ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে বিকাল ৪টায় শুরু হবে ম্যাচ। তিন ম্যাচ শেষে ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে আছে অস্ট্রেলিয়া। স্বাগতিক ইংল্যান্ডের সামনে বাঁচা-মরার লড়াই। সিরিজ বাঁচিয়ে রাখতে জয় কিংবা অন্ততপক্ষে ড্রয়ের বিকল্প নেই থ্রি লায়ন্সদের সামনে।

প্রথম দুই ম্যাচে ইংল্যান্ডকে যথাক্রমে দুই উইকেট ও ৪৩ রানে হারিয়ে ২-০ তে এগিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম দুই ম্যাচেই শেষ মুহূর্তে ম্যাচের খেই হারিয়ে ফেলে ইংলিশরা, যাতে জয় পায় অসিরা। তৃতীয় ম্যাচে এসে আর শেষ মুহূর্তের নিয়ন্ত্রণ হারায়নি ইংল্যান্ড। তিন উইকেটের জয়ে ফিরে আসে সিরিজে।

এবারের অ্যাশেজ শুরু থেকেই আলোচনায় ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ও বেন স্টোকসের ‘বাজবল’ ফর্মুলার জন্য। সবাই অপেক্ষায় ছিল টেস্টের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া কীভাবে সামলায় সেসব। প্রথম দুই ম্যাচ ভালোভাবেই উৎরে যাওয়া অসিরা অবশ্য তৃতীয় ম্যাচে পেরে ওঠেনি।

হেডিংলিতে তৃতীয় ম্যাচ জয়ের পর ইংলিশ অধিনায়ক বেন স্টোকস বলেন, ‘এটি সবে শুরু। সিরিজ আমরাই জিতব। আমরা জানতাম, সিরিজ জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখতে ম্যাচটি আমাদের জিততেই হতো। এটি দারুণ একটি জয়। যদি প্রথম দুই ম্যাচের দিকে লক্ষ্য করেন, খেয়াল করবেন ওরা কতটা শক্তিশালী। এই ম্যাচও খুব ক্লোজ ছিল। কিন্তু, এবার আমরা জয়ের সীমানা পার হতে পেরেছি।’

সীমানা পেরিয়ে লক্ষ্যটা এখন বহুদূর। ছাঁইয়ের লড়াইয়ে ইংল্যান্ডের ফিনিক্স পাখি হয়ে ফিরে আসার অপেক্ষা। আর অসিদের দরকার প্রথম দুই টেস্টের মতো একটা মোমেন্টাম, যাতে বদলে যাবে সবকিছু।

আরও পড়ুন