• ঢাকা
  • বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূইয়া

মোহাম্মদ আমান উল্যা, উপজেলা প্রতিনিধি, চাটখিল : নোয়াখালী জেলা অনুষ্ঠতব্য প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০২৩ এর জেলা পর্যায়ের শ্রেষ্ঠ নির্বাহী অফিসার হলেন চাটখিল উপজেলার সুদক্ষ ইউএনও মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূইয়া। ১৩ সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসক এর কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিচারকদের রায়ে চাটখিল উপজেলার ইউএনও জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, আজ চাটখিলবাসী ও প্রাথমিক শিক্ষা পরিবারের নিঃন্দেহে আনন্দের দিন। টানা ২ বার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ জাহাঙ্গীর কবির ও আমি প্রাথমিক শিক্ষা অবদানের জন্য শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছে।

শ্রেষ্ঠ হওয়ার রহস্য জানতে গিয়ে জানা যায়, চাটখিল উপজেলায় আসার পর থেকেই উপজেলায় বিভিন্ন প্রসংসনীয় কাজ করেছে। তিনি চাটখিল উপজেলায় সাপ্তাহ ব্যাপী বই মেলার ব্যাপক আয়োজন করে উপজেলার চোখে দৃষ্টিনন্দন হয়েছেন। যাহা পূর্বের কোন ইউএনও করেনি। এছাড়াও পবিত্র মাহে রমজান মাসে করেছেন কোরআন প্রতিযোগিতার আয়োজন, স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে স্বেচ্ছাসেবীদের নিয়ে দিন ব্যাপি কর্মশালা। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইতিহাসের পাতায় রাখার জন্য তৈরি করেছেন মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধকালীন স্মৃতি সংরক্ষণার্থে বীরত্বগাঁথার মতো প্রকল্প। এছাড়াও দ্রব্য মূল্যের বাজার নিয়ন্ত্রণের ব্যবসায়ীদের সাথে করেছেন বৈঠক। মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে বিভিন্ন মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ, অব্যবস্থাপনা, অযোগ্য, ভুয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যাহতি রাখেন। তাছাড়াও চাটখিল উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ে গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন সহায়তার ব্যবস্থা করেছেন বলে জানা যায়।

বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ১১৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার হার উন্নয়নের ব্যাপক ভূমিকা রেখেছে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মানউন্নয়নে ১০টি টিম গঠন করে প্রায় ১০০ও বেশি তথ্য সংগ্রহ করে সঠিক দিকনির্দেশনা প্রদান করেছে। ১১ই মার্চ ২০২৩ইং প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৬৫৯জন কর্মরত শিক্ষক ও ৫৯ অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের নিয়ে তৈরি করেছে দিনব্যাপী কর্মশালা। এছাড়াও বিভিন্ন বিদ্যালয় ভিজিটের মাধ্যমে গতিশীল রেখেছে শিক্ষা ব্যবস্থাকে। প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় উদ্বুদ্ধকরণ এর মাধ্যমে শাররিক ও মানসিক বিকাশে ভূমিকা রাখেন। তাছাড়াও মাল্টিমিডিয়া ক্লাস বাস্তবায়ন, বিভিন্ন জাতীয় দিবসগুলো যাথাযথ উৎযাপনের ক্ষেত্রেও বিশেষ ভূমিকা পালন করেছে। ডিজিটাল স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমাণে তার চিন্তা চেতনা ও দক্ষতা দিয়ে এই উপজেলার সকল সেক্টরকে আন্তরিকতার সহিত চালিয়েছে মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূঁইয়া। আর সকল কিছু বাস্তবায়নে সহযোগীতা করেছে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর কবির।

আরও পড়ুন