• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

সালমান শাহ বেঁচে থাকলে আমাকে সিনেমা ছাড়তে হতো না

দেশের কিংবদন্তী তারকাদের একজন ঢাকাই সিনেমার অভিনেত্রী ডলি জহুর। ক্যারিয়ারে বহু ব্যবসা সফল ছবিতে নিজের চরিত্রে অভিনয় দিয়ে দর্শকদের হাসিয়েছেন, কাঁদিয়েছেন তিনি।

১৯৯৪ সালে প্রথমবারের মতো ‘বিক্ষোভ’ সিনেমায় প্রয়াত নায়ক সালমান শাহ-এর মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন ডলি জহুর। এরপর একাধিক সিনেমায় এই একই চরিত্রে সালমান শাহ-এর সঙ্গে কাজ করতে দেখা গেছে তাকে।

এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেত্রী বলেছিলেন, পর্দায় ছেলে হিসেবে অভিনয় করা সালমান, বাস্তবেও তার ছেলের মতোই ছিলেন। ডলি জহুরের ভাষায়, আমি যখন বাংলাদেশ টেলিভিশনে নাটক করতাম, তখন সালমানও বিটিভিতে আসত, নাটক করত। ওই সময় থেকেই সালমান আমার ছেলের চরিত্রে অভিনয় করছে। বিশেষ করে সালমানকে বিটিভির প্রযোজক ও নাট্যকার জিয়া আনসারী খুব পছন্দ করতেন। তার রচিত বা প্রযোজিত বেশির ভাগ নাটকে ছোট ছেলের চরিত্র থাকলেই সালমানকে দিয়ে করাতেন। ওই সময় থেকেই সালমান আমার ছেলে হয়ে যায়।

অভিনেত্রী বলেন, ‘পর্দায় যেমন আমি ওর মা ছিলাম বাস্তবেও তাই ছিল। ও আমাকে আম্মু বলে যখন ডাক দিত, মনে হতো আমার ছেলেই আমাকে ডাকছে। মা-ছেলের মতোই আমাদের কথার আদান-প্রদান হতো।’

স্মৃতিচারণ করে ডলি জহুর বলেন, একবার সালমান অভিনয় করছিল আরেক সেটে। ওর মা চরিত্রটি অন্য আরেকজন করছিল। ওই সেট থেকে আমার কাছে আসার পর আমি বললাম, বাহ! এবারে তোর মা তো দেখতে খুবই গ্ল্যামারাস, সুন্দর। তোর আজকে নিশ্চয়ই খুব ভালো লাগছে কাজ করতে? তখন সালমান আমার কাঁধে হাত দিয়ে কানের কাছে মুখ রেখে বলল, নাহ, মা মা লাগে না।

সালমানকে নিয়ে আবেগপ্রবণ হয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, মাঝে মাঝে আমার খুবই কষ্ট লাগে। আমি ইমোশনাল হতে চাই না কিন্তু হয়ে যাই। এই ছেলেটা (সালমান শাহ) বেঁচে থাকলে হয়ত আমাকে ফিল্ম ছাড়তে হতো না।

আরও পড়ুন