• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ৭ নভেম্বর, ২০২৩

৮ মণ ওজনের শাপলাপাতা মাছ ৩৫ হাজারে বিক্রি

উপজেলা প্রতিনিধি, হাতিয়া : দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটে ৮ মণ ওজনের একটি শাপলাপাতা মাছ ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে।

সোমবার (৬ নভেম্বর) রাত ৮টার দিকে মাছটি উপজেলার হরণী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ঘাটের মৎস্য আড়তে বিক্রি করা হয়।

জানা যায়, মোহাম্মদ শফিক নামের এক মাঝি বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গেলে তার জালে ৮ মণ ওজনের একটি শাপলাপাতা মাছ ধরা পড়ে। পরে রাতে মাছটি চেয়ারম্যান ঘাটের আফসার মৎস্য আড়তে বিক্রির জন্য তোলেন। নিলামে সুবর্ণা গলদা ফিশ ৩৫ হাজার টাকা দিয়ে মাছটি কিনে নেয়। এ সময় মাছটিকে একনজর দেখতে ভিড় জমান স্থানীয় উৎসুক জনতা।

শফিক মাঝি বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে সাগরে মাছ ধরি, কিন্তু কখনো শাপলাপাতা মাছ পাইনি। এত বড় মাছ আমার জালে এই প্রথম ধরা পড়ল। আমি চেয়ারম্যান ঘাটের আফসার মৎস্য আড়তের মাধ্যমে ৩৫ হাজার টাকায় মাছটি বিক্রি করেছি।

স্থানীয় ব্যবসায়ী মো. আবদুর রহমান রনি বলেন, অন্যান্য সময় এসব মাছের দাম বেশি পাওয়া যায়, কিন্তু আজকে দাম কম পেয়েছে। তবে মাছটা দেখতে অনেকেই ভিড় জমিয়েছে। অনেকে ছবিও তুলেছে মাছের সঙ্গে।

আফসার মৎস্য আড়তের স্বত্বাধিকারী মো. আফসার উদ্দিন বলেন, নিলামে অনেক ব্যাপারী অংশ নেন। তবে সুবর্ণা গলদা ফিশের কাছে ৮ মণের মাছটি ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

হাতিয়া উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. সাজু চৌধুরী বলেন, সমুদ্রে মাছটি পাওয়া যায়। শাপলাপাতা মাছ ধরা বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে নিষিদ্ধ। কারণ সমুদ্রের জীববৈচিত্র্য রক্ষায় এর ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আরও পড়ুন

  • হাতিয়া এর আরও খবর