• ঢাকা
  • বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৭ নভেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৭ নভেম্বর, ২০২৩

বেগমগঞ্জে প্রবাসীকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা

মোস্তাফা কামাল স্বপন, উপজেলা প্রতিনিধি, বেগমগঞ্জ : জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলার ৪নং আলাইয়ারপুর ইউনিয়নের হরিভল্লবপুর গ্রামের মফিজ মিয়ার ছোট ছেলে কামাল হোসেন (৫০) দীর্ঘ দিন যাবত সৌদি আরবে চাকুরি করে। কামাল ছুটিতে বাড়ী ফিরলে পিতার রেখে যাওয়া সম্পত্তির ভাগ ভাটোয়ারা নিয়ে তার সহদর ভাইদের সঙ্গে বিরোধ হয়। ওই বিরোধের জের ধরে ১৫ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৮টায় দিকে দা, শাবল ও লাঠি সোঠা নিয়ে প্রবাসী কামাল হোসেন এর বসত ভিটায় ঢুকে হামলা চালাল।

আসামী ফারুক হোসেন (৬০) তার হাতে থাকা দা দিয়ে হত্যার উদ্দেশ্যে কোপ মারে ভিকটিম ডান হাত দিয়ে বাঁধা দিলে তার ডান হাতের কব্জির নিচে মারাত্মক আঘাত পায়। ২নং আসামী সেলিম তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে মাথায় বাড়ি দিলে ভিকটিম কামাল ফিরাতে গিয়ে তার ডান হাতের হাড় ভেঙ্গে যায়। ৩নং আসামী রজবী বেগম তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে ভিটটিমকে পায়ে হাটুতে এলোপাতাড়ী পিঠাতে থাকে এতে ভিকটিমের পায়ের হাড় ভেঙ্গে যায়। ৪নং আসামী সুমি আক্তার তার হাতে থাকা গাবগাছের লাঠি দিয়ে ভিকটিমের কমরে পিঠে এলোপাতাড়ী পিটিয়ে সমস্ত শরীর নীলাফুলা রক্তজমাট হয়ে যায়।

ভিকটিম কামাল হোসেন জানান, আসামীগনের সাথে অপরিচিত আরো ৪/৫ জন ছিল। তারা ভিকটিমের বসত ভিটায় অতর্কিত হামলা চালায় ভিকটিম ও তার পরিবারের লোকজনের আত্ম চিৎকারে আশপাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে। আসামীরা চলে যেতে হুমকি দিয়ে বলে তোর ও তোরপরিবারের সদস্যদের হত্যা করে লাশ এই জমিনে পুতে রাখবো।

কামাল আরো জানায়, আমি প্রথম এই পরিবারে বিদেশে যাই এবং সব ভাই-বোনদের আপদে-বিপদে সাহায্য সহযোগিতা করি। আজ এরা আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার জন্য হামলা চালায়। ভিকটিম এলাকার স্থানীয় মেম্বার ও গণ্যমান্যদের ফোনে জানায়।

আরও পড়ুন

  • বেগমগঞ্জ এর আরও খবর