• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০২৩

মাইজদীর একমাত্র পৌর পার্কটি ব্যবসায়ীদের দখলে ! – ফখরুল ইসলাম

মাইজদীতে শিশু-কিশোরদের খেলাধুলা ও বিনোদনের জন্য কোন জায়গায় নেই, বয়স্ক মানুষদের জন্য বৈকালিক ভ্রমণ ও হাঁটাচলার জন্য নেই কোনো ব্যবস্থা। অথচ মাইজদীর শহরের একমাত্র পৌর পার্কটি আজ প্রসাশন নাকের ডগায় নানা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দীঘির চারপাশে বিভিন্ন ব্যক্তি দখল করে ব্যবসা বাণিজ্য গড়ে তুলেছে।

এই পৌর পার্কটি হতে পারতো শিশু কিশোর ও বয়স্ক মানুষদের বৈকালিক ভ্রমণ ও খেলাধুলা জন্য প্রধান বিনোদন কেন্দ্র।

সেটা না হয়ে দীঘির এক অংশে বিআরডিবি, আরেক অংশে কোর্ট মসজিদ বিশাল অংশ জুড়ে অবস্থান করছে। পশ্চিম দক্ষিণ অংশে নার্সারি, বাঁশের ব্যবসা, পার্কের ভেতরে ছোট ছোট জামাকাপড়ের দোকান গড়ে উঠেছে, যেন দেখার কেউ নেই!
উত্তর পূর্ব কোনায় ছোট একটা অংশে নামে মাত্র সর্ব সাধারণের বসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু বাচ্চাদের খেলাধুলার কোন ব্যবস্থা নেই।

এতবড় জেলা শহরে সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড চালানোর জন্য নেই কোনো হলের ব্যবস্থা, ভাঙ্গাচুরা টাউন হল পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে, পৌর হলটা ভেঙে ফেলা হয়েছে, কিশোরদের জন্য নেই পর্যাপ্ত খেলাধুলার ব্যবস্থা ।

শিশু-কিশোরদের সুস্থ মানুষিক বিকাশের জন্য কোন আয়োজন না থাকার কারণে এরা কিশোর গ্যাং সহ নানা অনৈতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত হয়ে পড়ছে।
তাই শিশু-কিশোরদের সুন্দর পরিবেশে গড়ে উঠার জন্য এবং বয়স্ক মানুষদের সুস্থ শরীর নিয়ে বেঁচে থাকার জন্য বৈকালিক ভ্রমণ ও মানসিক শান্তি লাভের জন্য পৌর পার্কটি গুরুত্ব অপরিসীম।

এমতাবস্থায় কোর্ট বিল্ডিং দীঘির চারপাশে সুন্দর পরিবেশ নিয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ পৌর পার্ক গড়ে তোলার জন্য রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, প্রশাসন সহ সকল সচেতন নাগরিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

আরও পড়ুন