• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১১ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১১ ডিসেম্বর, ২০২৩

কারাগার থেকে উধাও পুতিন বিরোধী নেতা

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বি ও বিরোধী দলীয় নেতা অ্যালেক্সি নাভালনিকে কারাগারে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন তার আইনজীবীরা।

অ্যালেক্সি নাভালনি রাজধানী মস্কো থেকে ১৫০ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত একটি কারাগারে বন্দি ছিলেন। কিন্তু এখন তিনি কোথায় আছেন সেটি নিশ্চিত নয়।

সহিংস কর্মকাণ্ড, অর্থায়ন এবং অন্যান্য অপরাধ সংঘটিত করার অপরাধে গত আগস্টে নাভালনিকে ১৯ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এই দণ্ডের আগেই প্রতারণার অভিযোগে ১১ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছিলেন তিনি। যদিও নাভালনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

নাভালনির সমর্থকদের দাবি, প্রেসিডেন্ট পুতিনের সমালোচনা করায় তাকে অবৈধ দণ্ডের মাধ্যমে আটকে রাখা হয়েছে।

নাভালনির মুখপাত্র কিয়া ইয়ারমাস সোমবার (১১ ডিসেম্বর) মাইক্রো ব্লগিং সাইট এক্সে বলেছেন, নাভালনির খোঁজে দুটি কারাগারে যোগাযোগ করেছিলেন তার আইনজীবীরা। তবে ৪৭ বছর বয়সী নাভালনি এই দুই কারাগারের একটিতেও নেই বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরও জানিয়েছেন, নাভালনি গত ছয়দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। গত শুক্রবার থেকে সোমবার পর্যন্ত তার খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা চালিয়েছেন আইনজীবীরা।

নাভালনির মুখপাত্র আরও বলেছেন, আজ সোমবার আদালতে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে তার হাজির হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিদ্যুৎ সংযোগের সমস্যার কারণে তিনি হাজির হতে পারেননি।

তিনি জানিয়েছেন, নাভালনিকে নিয়ে তারা অনেক চিন্তিত। কারণ গত সপ্তাহে কারাগারের ভেতর মাথাঘুরে পড়ে গিয়েছিলেন তিনি। এরপর কারারক্ষীরা দ্রুত তার কাছে যান এবং প্রাথমিক চিকিৎসা দেন।

নাভালনিকে পুতিনের ক্ষমতার জন্য হুমকি হিসেবে দেখা হয়। তিনি পুতিনের বিরুদ্ধে রাশিয়ায় অসংখ্যবার বিক্ষোভ সমাবেশ আয়োজন করেছেন। এছাড়া রুশ এলিট সমাজ ও ব্যবসায়ীদের দুর্নীতিগুলো ফাঁস করেছেন।

২০২০ সালে নাভালনির শরীরে বিষ প্রয়োগ করা হয়েছিল। ওই সময় তাকে চিকিৎসার জন্য রাশিয়া থেকে জার্মানিতে নেওয়া হয়। সেখানে দীর্ঘদিন চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি। এই বিষ প্রয়োগের জন্য রাশিয়ার সরকারকে দায়ী করা হয়।

আরও পড়ুন