• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১২ ডিসেম্বর, ২০২৩

অভিযান দেখে ১১৬ টাকায় বিক্রি হলো ৪২৭ মণ পেঁয়াজ

উপজেলা প্রতিনিধি, বেগমগঞ্জ : ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান দেখে ১১৬ টাকায় বিক্রি হলো ২৮৫ বস্তা অর্থাৎ ৪২৭ মণ পেঁয়াজ। এসময় বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি এবং মূল্য তালিকা না থাকায় এক ব্যবসায়ীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

সোমবার (১১ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায় চৌমুহনী দক্ষিণ বাজারে এ জরিমানা করেন ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালীর সহকারী পরিচালক মো. কাউছার মিয়া।এ সময় অতিরিক্ত দামের আশায় পেঁয়াজ মজুদ করে না রাখতে ব্যবসায়ীদের সতর্ক করা হয়।

অভিযান সূত্রে জানা যায়, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের বাজার স্থিতিশীল রাখতে সোমবার (১১ ডিসেম্বর) বিকেলে জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায় চৌমুহনী দক্ষিণ বাজারে হক ট্রেডার্সে অভিযান পরিচালনা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর জেলা শাখা। এ সময় বিক্রির মূল্য তালিকায় অমিল, মূল্য তালিকা প্রদর্শন না করায় ১০ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ করা হয় এবং ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক করা হয়। এসময় অভিযান দেখে পাশ্ববর্তী দোকান ‘খগপতি ভান্ডার’ ২৮৫ বস্তা পেঁয়াজ পাইকারি ১১৬ টাকায় বিক্রি করা হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর নোয়াখালীর সহকারী পরিচালক মো. কাউছার মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, অভিযান দেখে ‘খগপতি ভান্ডার’ আমাদেরকে বলে তারা সরকারের নির্ধারিত দামে বিক্রি করছে। আমরা দাঁড়িয়ে দেখেছি তারা ৪২৭ মণ পেঁয়াজ বা ২৮৫ বস্তা পেঁয়াজ ১১৬ টাকা করে বিক্রি করতে। জনস্বার্থে এমন অভিযান অব্যাহত থাকবে

অভিযান পরিচালনায় সহযোগিতা করেন জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মো. শওকত আলী ও চৌমুহনী পুলিশ ফাঁড়ির একদল থানা পুলিশরা।

আরও পড়ুন

  • বেগমগঞ্জ এর আরও খবর