• ঢাকা
  • সোমবার, ১৭ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৮ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর, ২০২৩

বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নোবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নেতৃত্বে নীল দল

নিজস্ব প্রতিবেদক : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (নোবিপ্রবি) শিক্ষক সমিতির নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আওয়ামী লীগপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন নীল দল জয়ী হয়েছে। আগামী এক বছরের জন্য শিক্ষক সমিতির দায়িত্ব পালন করবেন তারা।

সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে প্রধান নির্বাচন কমিশনার এসিসিই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ও মোহাম্মদ সাইফুল আলম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে নীল দলের প্রার্থীদের বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী ঘোষণা করা হয়।

এদিকে, সোমবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুর ১ টা পর্যন্ত মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ সময় ছিল এবং গতকাল রোববার (১৭ ডিসেম্বর) বিকেল সাড়ে ৩ টা পর্যন্ত ছিল মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ সময়। তাছাড়া আগামী ২১ ডিসেম্বর ভোটের তারিখ নির্ধারণ করেছিল নির্বাচন পরিচালনা কমিটি। তবে নীল দলের বাইরে কোনো প্যানেল কিংবা স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেননি। তাই নীল দলের সব প্রার্থীকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী ঘোষণা করা হয়।

সভাপতি পদে শিক্ষা বিভাগের অধ্যাপক ড. বিপ্লব মল্লিক, সহ-সভাপতি পদে ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহবুবুর রহমান, কৃষি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. কাওসার হোসেন এবং সাধারণ সম্পাদক পদে ফিমস বিভাগের অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান জয়ী হয়েছেন।

এছাড়াও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মোহাইমিনুল ইসলাম সেলিম, বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাহানা রহমান, কোষাধ্যক্ষ পদে পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. ইফতেখার পারভেজ, শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক পদে ইএসডিএম বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মহিনুজ্জামান, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক পদে বিএমএস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. শাহিন কাদের ভূঁইয়া, প্রচার সম্পাদক পদে ওশানোগ্রাফি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক নাজমুস সাকিব খান, সদস্য হিসেবে কৃষি বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আতিকুর রহমান ভূঞা, সমাজকর্ম বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শেখ মারুফা নাবিলা, আইআইটি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. ইফতেখারুল আলম ইফাত, বিএমবি বিভাগের প্রভাষক মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান ও ইংরেজী বিভাগের প্রভাষক হুমায়রা সুলতানা জয়ী হয়েছেন।

সভাপতি পদে বিজয়ী হওয়া শিক্ষা বিভাগের অধ্যাপক ড. বিপ্লব মল্লিক বলেন, নির্বাচনে অন্য কেউ অংশগ্রহণ না করায় আমরা নীল দলের পুরো প্যানেল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছি। আগামী দিনগুলোতে শিক্ষকদের সকল প্রয়োজনে শিক্ষক সমিতি পাশে থাকবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার মোহাম্মদ সাইফুল আলম বলেন, নীল দলের প্যানেলের ১৫ জন প্রার্থী ছাড়া অন্য কোনো প্রার্থী মনোনয়ন জমা দেননি। তাই আমরা নীল দলের প্রার্থীদের জয়ী ঘোষণা করে ফল প্রকাশ করেছি।

আরও পড়ুন