• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩

মাইজদীতে নৌকা ও সতন্ত্র প্রার্থীর বিষয়ে মতবিনিময় সভা

উপজেলা প্রতিনিধি, সদর : পৌর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের কনফারেন্স কক্ষে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগ, সদর সূবর্ণচর নোয়াখালী-৪ আসনের ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।

সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যক্ষ এ.এইচ.এম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের উপস্থিতিতে এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মেয়র সহিদ উল্যাহ্ খানের সঞ্চালনায় এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, নোয়াখালী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু।

সভায় আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতাকর্মীদের বক্তব্যের আলোকে যুক্তি খন্ডন করেন, পৌর আওয়ামী সাধারণ সম্পাদক মিথুন ভট্টাচার্য এবং নোয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এ.কে.এম শামছুউদ্দিন জেহান। পরবর্তীতে সাবেক নোয়াখালী পৌরসভার মেয়র আবদুর রহমান মঞ্জু সকলের মান অভিমান ভুলে শুধুমাত্র জননেত্রী শেখ হাসিনা ও জননেতা ওবায়দুল কাদের ভাইয়ের সম্মানার্থে তৃণমূল নেতাকর্মীরা নৌকার পক্ষে কাজ করার আহ্বান জানান।

মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন, ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক। জেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক নাজমুল আলম মঞ্জু। জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রহমত উল্যাহ ভুঁইয়া। পৌর আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক ও নোয়াখালী সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান নুর আলম সিদ্দিকী রাজু। বীর মুক্তিযোদ্ধাগণ কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও নোয়াখালী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল ওয়াদুদ পিন্টু বলেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক যেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে, জননেত্রী শেখ হাসিনার সিদ্ধান্তের বাহিরে কোন আপোষ নাই। সুতরাং ছাত্রলীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ, সেচ্ছাসেবক লীগ সহ দলের সকল অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে ভোট কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি করতে সচেষ্ট ভাবে কাজ করতে হবে।

জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ করেন দল ক্ষমতায় বলে কাউকেই অসম্মাস অশ্রদ্ধা অবঙ্গা করা যাবে না। কারো সাথে কোনোরূপ বেয়াদবি করা যাবে না। আমার পৌর নির্বাচনের সময়ও আওয়ামী লীগের অনেকেই আমার সাথে কি করেছে এটা সকলের জানা আছে। তারপরেও আমি কখনো কারো বিরুদ্ধে আমি কোন কথা বলি নাই বলবোও না। কারণ এটা পৌরসভার ভোট নয়, এটা জননেত্রী শেখ হাসিনার ভোট। সংসদ নির্বাচনের ভোট, এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক ভাবে বহু সমস্যা তৈরী করছে আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে। এই নির্বাচনকে বিএনপি জামায়াত বয়কট করে বিভিন্নরকম ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। সেই কারণে জননেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নির্বাচনকে উৎসব ও গ্রহনযোগ্য করার জন্য সতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার জন্য।

এমতাবস্থায় আমরা অতিতে কোনদিন শেখ হাসিনার প্রশ্নে আপোষ করি নাই আর এখনতো আপোষ করার প্রশ্নই আসে না।

এবারের নির্বাচনের পরেও অনেক কিছুর মোকাবেলা করতে হবে, সুতরাং আমরা আওয়ামী লীগের জন্য, জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য, জননেতা ওবায়দুল কাদের ভাইয়ের জন্য আওয়ামী লীগের সকল অঙ্গ সংগঠন ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাজ করতে হবে এবং প্রত্যেকে ভোট কেন্দ্রে ভোটার নিয়ে উপস্থিত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য শেষ করেন।

আরও পড়ুন

  • নোয়াখালী সদর এর আরও খবর