• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০২৩

হাইকোর্টে রিট খারিজ : প্রার্থিতা ধরে রাখতে পারলেন না বিকল্পধারার মেজর মান্নান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : নোয়াখালী-৪ ও লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে নির্বাচনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে বিকল্পধারা বাংলাদেশের মহাসচিব অবসরপ্রাপ্ত মেজর আবদুল মান্নানের করা রিট সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। এতে মনোনয়নপত্র বাতিল করে রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কমিশনের দেওয়া সিদ্ধান্তই বহাল থাকলো।

বুধবার (২০ ডিসেম্বর) বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমান ও বিচারপতি মো. বশির উল্লাহর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার হাইকোর্টের একই বেঞ্চ লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে তার করা অন্য রিটটিও সরাসরি খারিজ করে দেন।

আদালতে আজ মান্নানের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মঈন ফিরোজী। ইসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শেখ শফিক মাহমুদ।

এর আগে লক্ষ্মীপুর-৪ (রামগতি ও কমলনগর) আসন থেকেও ঋণ খেলাপির অভিযোগে বিকল্পধারার মহাসচিব আব্দুল মান্নানের মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে নোয়াখালী-৪ ও লক্ষ্মীপুর-৪ আসন থেকে মনোনয়নপত্র নিয়েছিলেন মেজর মান্নান।

কিন্তু ঋণ খেলাপির অভিযোগে রোববার (৩ ডিসেম্বর) নোয়াখালী-৪ এবং একই অভিযোগে সোমবার (৪ ডিসেম্বর) লক্ষ্মীপুর-৪ আসনে তার মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তারা।

পরে ওই দুই আসনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে নির্বাচন কমিশনে পৃথক আপিল করলে গত ১৩ ডিসেম্বর কমিশনের শুনানিতে তা বাতিল হয়ে যায়। কমিশনের এ সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে প্রার্থিতা ফিরে পেতে গত ১৭ ডিসেম্বর হাইকোর্টে পৃথক রিট করেন আবদুল মান্নান।

জানা গেছে, ক্রেডিট ইনফরমেশন ব্যুরোর (সিআইবি) প্রতিবেদন অনুযায়ী মেজর (অব.) আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ব্যাংকে ঋণ খেলাপির অভিযোগ রয়েছে। এছাড়া তিনি তিন কোটি ২৯ লাখ টাকার ট্যাক্স পরিশোধ করেননি। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে তার উভয় মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়।

মেজর (অব.) আব্দুল মান্নান লক্ষ্মীপুর-৪ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য এবং তিনি নোয়াখালী সদরের মান্নান নগর এলাকার বাসিন্দা।

আরও পড়ুন

  • বিশেষ প্রতিবেদন এর আরও খবর