• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ১৪ জানুয়ারি, ২০২৪

বিশ্বকাপ খেলার আশা ছাড়েননি এবাদত

চারদিন পরেই পর্দা উঠবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দশম আসরের। দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে ঝাঁকজমকপূর্ণ এই আসরে যারা দল পেয়েছেন তাদের সবাই অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন। তবে আলাদা করে যাকে দেখা যায় মাঠে, তিনি এবাদত হোসেন।

গত বছর আফগানিস্তান সিরিজে চোটে পড়া এই পেসার এখনও সেরে উঠতে পারেননি। চোটের কারণে গত বছর এশিয়া কাপ এবং বিশ্বকাপের মতো বড় আসর মিস করেছেন। খেলতে পারেননি কয়েকটি দ্বিপক্ষীয় সিরিজে।

লন্ডনে হাঁটুর অস্ত্রোপচার করিয়ে দেশে ফিরে কাজ করছেন নিজেকে সারিয়ে তোলার। তবে পুরোপুরি সেরে উঠতে সময় লাগবে আরও কিছু সময়। এই সময়ের মধ্যে নাও খেলা হতে পারে আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ।

কয়েকদিন আগে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছিলেন, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে মাঠে ফেরার সম্ভাবনা নেই এবাদতের।

তবে পুনর্বাসনে থাকা এবাদত মনে করছেন এখনও আশা শেষ হয়ে যায়নি তার। বাকিদের মাঠে ফেরা দেখে এবাদতেরও ফেরার তাড়না বেড়ে গেছে কয়েকগুণ।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে এবাদত বলেন, ‘স্বাভাবিক না খেলোয়াড় হিসেবে খেলতে পারছি না… এটা তো কষ্টের। ওরা খেলতে পারছে আমি পারছি না। কষ্ট তো একটু লাগবেই। ওদের অনুশীলন দেখলে মনে হয় একটু বল করি, বল ধরি।’

বিশ্বকাপ শুরু হতে এখনও কয়েক মাস বাকি। এই সময়ের মধ্যে পুরোপুরি সেরে উঠবেন বলে আশা তার, ‘আমি তো আশা করি বিশ্বকাপের আগেই ফিরব। পরশু দিন আমার দুই পায়ের মেজারমেন্ট নেওয়া হয়েছে পায়ের। ভালো আছে। এটাতে ডাক্তারও খুশি। মনে হচ্ছে কষ্ট যেটা করছি সেটার ফল ভালোই আসছে। স্ট্রেন্থ গেইন করার পর ধীরে ধীরে রানিং শুরু করব। তারপরে আস্তে আস্তে বোলিংয়ে যাব।’

আরও পড়ুন