• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৮ জানুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ১৮ জানুয়ারি, ২০২৪

মাইজদীতে দন্ত চিকিৎসার ১০ অবৈধ ক্লিনিক সিলগালা

উপজেলা প্রতিনিধি, সদর : নামসর্বস্ব ও অবৈধভাবে গড়ে ওঠা ডেন্টাল ক্লিনিকের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। নোয়াখালীতে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদফতরের নির্দেশনায় ইতোমধ্যে শহরের বিভিন্ন এলাকার ১০টি অবৈধ ডেন্টাল ক্লিনিক বন্ধ করে দিয়েছেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। একই সঙ্গে আরও একাধিক ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সতর্ক করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করেন সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাঈমা নুসরাত জাবীন। অভিযানে সহযোগিতা করেন, জেলা সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডা. যিশু দাসসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

অভিযান সূত্রে জানা গেছে, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী সকাল থেকে জেলা শহর মাইজদী ও কয়েকটি ইউনিয়নে অভিযান চালায় জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। অভিযানকালে নিবন্ধন, বৈধ কোনো কাগজপত্র, চিকিৎসক ও টেকনোলজিস্ট না থাকায় মাইজদীর ৮টি ডেন্টাল ক্লিনিক ও চরমটুয়া ইউনিয়নে ২টি ডেন্টাল কেয়ার সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে।

সিলগালা করা দেওয়া প্রতিষ্ঠান গুলো হলো, দি ডেন্টাল পয়েন্ট, মা ডেন্টাল কেয়ার, জামাল দন্ত চিকিৎসালয়, মডার্ন ডেন্টাল কেয়ার, নোয়াখালী ডেন্টাল কেয়ার, নাজমুল ডেন্টাল কেয়ার, নিপেন ডেন্টাল কেয়ার, আশা ডেন্টাল কেয়ার, মেঘ ডেন্টাল কেয়ার ও জাহানার ডেন্টাল।

সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাঈমা নুসরাত জাবীন বলেন,নিবন্ধন না থাকা, চিকিৎসক ও ল্যাব টেকনোলজিস্ট না থাকায় আমরা জেলা শহর মাইজদীতে মোট ১০টি ডেন্টাল ও ক্লিনিককে সিলগালা করে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছি। একই সঙ্গে আরও একাধিক ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সতর্ক করা হয়েছে।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ি আমরা আজ জেলার সদর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়েছি। আমাদের একাধিক দল এ অভিযান পরিচালনা করি। সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মোট ১০টি ডেন্টাল ক্লিনিক বন্ধ করা হয়েছে। বৈধ কাগজপত্র ছাড়া কোনো ক্লিনিক ও হাসপাতাল পরিচালনা করা যাবে না। আমাদের এ অভিযান অব্যহত থাকবে।

আরও পড়ুন