• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ২৩ জানুয়ারি, ২০২৪

নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের শহিদ মিনার ও জাতির পিতার ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন

নোবিপ্রবি প্রতিনিধি : নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) নব-নির্বাচিত অফিসার্স এসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে নোবিপ্রবি কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুুজিবুর রহমানের ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের বীর মুক্তিযোদ্ধা হাজী মোহাম্মদ ইদ্রিস অডিটোরিয়ামে নব-নির্বাচিত কমিটি সাধারণ কর্মকর্তাদের সঙ্গে ফুলেল শুভেচ্ছা, দায়িত্ব হস্তান্তর অনুষ্ঠান ও মতবিনিময় সভা করে। সোমবার (২২ জানুয়ারি ২০২৪) সকালে অফিসার্স এসোসিয়েশন কর্তৃক আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম বলেন, আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের নতুন কার্যকরী পরিষদকে শুভেচ্ছা, অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানাই। আমি প্রত্যাশা করি বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বাঙ্গীন কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে, সুন্দর সুশৃঙ্খল কর্মপরিবেশ তৈরিতে এ পরিষদ সর্বাত্মক সহযোগিতা করবে। এসময় তিনি সততা ও কর্মনিষ্ঠার সঙ্গে দাপ্তরিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য কর্মকর্তাবৃন্দের নিকট আহ্বান জানান।

তিনি আরও বলেন, ‘নোবিপ্রবি একটি পরিবার, এর উন্নয়নে তথা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রত্যেকের অবস্থান থেকে নিজের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালনকরতে হবে। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধ’।

নোবিপ্রবি অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মো. ইবনে ওয়াজিদ ইসলাম ইমনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নোবিপ্রবি কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর, শিক্ষক সমিতির সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. এস.এম. মাহবুবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. আনিসুজ্জামান, নোবিপ্রবি রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন, অফিসার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মেজবাহ উদ্দিন ও অফিসার্স এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ।

বিশেষ অতিথি কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর তার বক্তব্যে অফিসার্স এসোসিয়েশনের নির্বাচনে বিজয়ী এবং পরাজিত উভয় পরিষদকে অভিনন্দন ও শুভকামনা জানান। এসময় তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলে মিলে বৃহৎ একটি পরিবার।

পরিবারের প্রত্যেকটি সম্পর্ক একে অপরের পরিপূরক, একটি অপরটির সঙ্গে যুক্ত, একটি ব্যতিত অন্যটি চলে না। তাই সর্বোপরি বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিতে আমাদের প্রত্যেকের সম্মিলিত প্রয়াস জরুরি।

অন্যান্যের মধ্যে রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ জসীম উদ্দিন সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের নতুন কার্যকরী পরিষদকে অভিনন্দন জানান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়কে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে কর্মকর্তাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

এসময় অনুষ্ঠানে নব-নির্বাচিত অফিসার্স এসোসিয়েশনের কার্যকরী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন দপ্তর ও শাখা প্রধানবৃন্দসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

  • ক্যাম্পাস এর আরও খবর