• ঢাকা
  • বুধবার, ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

বেগমগঞ্জে ডাক্তারের বিরুদ্ধে রোগীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ

উপজেলা প্রতিনিধি, বেগমগঞ্জ : বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌরাস্তায় প্রাইম হসপিটাল লিমিটেড (ইউনিট-২) নামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিজ চেম্বারে রোগীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠেছে বাবলু কুমার বণিক নামের এক ডাক্তারের বিরুদ্ধে।

বাবলু কুমার বণিক নোয়াখালীর আবদুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজের গ্যাস্ট্রো-এন্টারোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।
এই ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বেগমগঞ্জ মডেল থানায় ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে লিখিত এজহার দায়ের করেছেন।

ভুক্তভোগী নারী জানান, গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা থাকায় গত শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বেগমগঞ্জ চৌরাস্তার প্রাইম হসপিটাল লিমিটেড (ইউনিট-২) এর গ্যাস্ট্রো এন্টারোলজি ডাক্তার বাবলু কুমার বণিকের চেম্বারে চিকিৎসা নিতে যান তিনি। পরে ওই ডাক্তার চিকিৎসা প্রদানের সময় হাতে গ্লাভস পড়া ছাড়াই তাঁর জামার ভিতরে হাত ঢুকিয়ে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর জায়গায় স্পর্শ করে, পরে ভুক্তভোগী চিৎকার করলে তার মা ও বাবা ছুটে আসেন।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত ডাক্তার বাবলু কুমার বণিক বলেন, তিনি একজন রোগী হিসেবে যেভাবে চিকিৎসা করা প্রয়োজন, ঠিক সেইভাবেই ওই রোগীর মা এবং তার সহকারীর সামনে রোগীকে দেখছিলেন। হঠাৎ ওই রোগী উত্তেজিত হয়ে তার স্বজনদের ডেকে আনেন। পরে হাসপাতালের চেম্বারে ডুকে রোগীর স্বজনরা তাকে এলাপাতাড়ি হামলা চালিয়ে হেনস্থা করেন। এই ঘটনা তিনি ডাক্তারদের সংগঠনকে জানিয়েছেন এবং বেগমগঞ্জ মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন।

এই ঘটনায় জেলা সিভিল সার্জনের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, তদন্ত রিপোর্ট হাতে আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

এই বিষয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার ইসলাম জানান, এই ঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবার থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন এছাড়াও জেলা সিভিল সার্জন এর পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে, তদন্ত রিপোর্ট হাতে আসলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন