• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

মফস্বল সাংবাদিকদের মতো অসহায় আর কেউ নাই-এমপি ইব্রাহিম

উপজেলা প্রতিনিধি, চাটখিল : মফস্বল সাংবাদিকদের মতো অসহায় আর কেউ নাই বলে মন্তব্য করেছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও নোয়াখালী-১ (চাটখিল-সোনাইমুড়ী) আসনের সংসদ সদস্য এইচ এম ইব্রাহিম এমপি। বৃহস্পতিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে চাটখিল প্রেসক্লাবে এক সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মফস্বল সাংবাদিকদের মতো অসহায় আর কেউ নাই। কারণ মফস্বল সাংবাদিকতা একটা চ্যালেঞ্জ। আপনার বাড়ির পাশে কেউ অনিয়ম করলে আপনি লিখতে পারেন না ভয়ে। কেননা একই সমাজে বাস করেন, একই মসজিদে নামাজ পড়েন। বিকেলে আবার সবাই সবার মুখ দেখেন, বাজারে গেলে একে অন্যের সাথে দেখা হয়। একারণেই মফস্বল সাংবাদিকতা একটা চ্যালেঞ্জ। আমি আগেও বলেছি মফস্বল সাংবাদিকরা সবার কথা বললেও নিজেদের কথা বলতে পারেন না।

তিনি আরও বলেন, ঢাকা শহরে অথবা বিভাগীয় শহরে কেউ কাউকে চিনে না৷ আমার বিরুদ্ধে যে লিখে কখনো আমার চেহারাও দেখেনি। কিন্তু মফস্বলে কারো বিরুদ্ধে লিখলে ১০ বার চিন্তা করে না জানি আমারে কি করে, আমার কি হয়। মফস্বলের সাংবাদিকরা অসহায়, মারের ভয়ে সত্য প্রকাশ করতে পারে না। এসবের মধ্যে যারা লিখে যান তারা অনেক সাহসী। তাদেরকে আমি সম্মান জানাই।

মফস্বল সাংবাদিকরা সম্মান পাক উল্লেখ করে এমপি ইব্রাহিম বলেন, মফস্বলের সাংবাদিকরা কেউ কেউ নামমাত্র সম্মানী পায়, আবার কেউ কিছুই পায়না । এছাড়া তাদের আয়ের কোনো সোর্স নেই। তারা সাংবাদিকতা ছাড়া কিছুই করতে পারে না। বর্তমানে যা অবস্থা চলছে সাংবাদিক ভাইদের বিকল্প চিন্তা করতে হবে। এপেশার উপর নির্ভর করে আপনি চলতে পারবেন না। আমার ইচ্ছে আছে অসুস্থ ও দুঃস্থ সাংবাদিকদের জন্য কিছু করার। আমি তথ্যমন্ত্রীর সাথে এসব বিষয়ে নানা আলাপ করেছি। আমি চাই মফস্বল সাংবাদিকরা সম্মান পাক।

তিনি আরও বলেন, আমার জানা অনেক সম্পাদকের সঙ্গে আমার ভালো সম্পর্ক আছে। আমি নিজেও এই মিডিয়া জগতের সাথে জড়িত ছিলাম। টেলিভিশন চ্যানেলের মালিকদের মধ্যে অন্তত ২০ জন আছে যারা আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধু। যদি রাষ্ট্রীয় ভাবে সাংবাদিকদের জন্য কিছু না করা যায় তাহলে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ উঠে তা বন্ধ হবে না। জীবন জীবিকার তাগিদে যখন উপায় থাকবে না তখন অনেক রাস্তা বেঁচে নিতে হয়। এটাই স্বাভাবিক, কারণ আমরা ত মানুষ।

চাটখিল প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. শোয়েব হোসেন ভুলুর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক মো. মামুন হোসেন ও কামরুল কাননের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন চাটখিল আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা ভিপি শাকিল, চাটখিল পৌরসভার মেয়র ভিপি নিজাম উদ্দিন, সাংবাদিক হাবিবুর রহমান, আবু তৈয়ব, মিজানুর রহমান বাবর, ফারুক সিদ্দিকী ফরহাদ, মেহেদী হাসান রুবেল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ইমদাদুল হকসহ চাটখিল উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন