• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২ মার্চ, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ২ মার্চ, ২০২৪

ভাসানচর অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠছে-পলক

নিজস্ব প্রতিবেদক : ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ভাসানচর বর্তমানে মানুষের বসবাসের উপযোগী হয়ে উঠার পাশাপাশি অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক কেন্দ্র হিসেবেও গড়ে উঠছে। বঙ্গবন্ধুকন্যার এই স্বপ্ন ও প্রকল্প বাস্তবায়নে যারা কাজ করছেন তারা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। শুক্রবার (১ মার্চ) বেলা ১২ টার দিকে ভাসানচরের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

জুনাইদ আহমেদ পলক আরও বলেন, সৃজনশীল, সৎ, সাহসী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে সকল বাঁধাকে জয় করে অসম্ভবকে সম্ভব করে বিগত ১৫ বছর বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। একইভাবে এই ভাসানচর প্রকল্পটা শুরু করার পর অনেকেই বলেছিলো এটা একটা অসম্ভব কল্পনা। সেই অসম্ভব কল্পনাকেই বাস্তবে সফল বাস্তবায়ন করেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আধুনিক সকল কানেক্টিভিটি, বিদ্যুৎ, টেলিকমিউনিকেশন সংযোগ এবং শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবাসহ সকল নাগরিক সুবিধা ভাসানচরে এখন পাওয়া যাচ্ছে এবং এখানে বর্তমানে প্রায় ৪০ হাজার লোক বসবাস করছে।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে চট্রগ্রাম থেকে স্পীডবোটের মাধ্যমে ভাসানচরে আসেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। পরবর্তীতে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় উপভোগ শেষে রাতে ভাসানচরে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মেরিন জেটি পরিদর্শন এবং মতবিনিময় করেন। শুক্রবার (১ মার্চ) সকালে ভাসানচরে টঘঐঈজ এর হেড অফ ফিল্ড অফিস এধষরুধ এাঁধবাধ, টহরপবভ, জজজঈ সহ অন্যান্য এনজিও প্রতিনিধির সাথে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেন। এরপর ওঙগ এর সহযোগিতায় প্রত্যাশী এনজিও- এর উদ্যোগে বাস্তবায়িত হস্তশিল্পের প্রশিক্ষণ কার্যক্রম, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এর অধীনে ২০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল, ভাসানচর থানা, স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত ইজঅঈ, ঋৎরবহফংযরঢ়, জঞগও, ওঢ়ধং ইধহমষধফবংয এর কার্যক্রম, ইজঅঈ লেক, ভেটেনারি ক্লিনিক ও মাল্টিপারপাস ভবনে বঙ্গবন্ধু কর্নার পরিদর্শন করেন। ভাসানচর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে পবিত্র জুম্মার নামাজ আদায় শেষে দুপুর দেড়টায় তিনি স্পীডবোটের মাধ্যমে চট্রগ্রামের উদ্দেশ্যে ভাসানচর ত্যাগ করেন।

এসময় ভাসানচর আশ্রয়ণ প্রকল্পের দায়িত্ব পালনকারী অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার কার্যালয়ের (আরআরআরসি) উপসচিব মো. মাহফুজার রহমান, নৌবাহিনীর ভাসানচর ক্যাম্পের নির্বাহী কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট সাজ্জাদ, জেলা প্রশাসনের উপপরিচালক (স্থানীয় সরকার) জালাল উদ্দীন, সহকারী পুলিশ সুপার (হাতিয়া সার্কেল) মো. আমান উল্যাহ, ভাসানচর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাওসার আলম ভূঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসনের উপপরিচালক (স্থানীয় সরকার) জালাল উদ্দীন বিষয়গুলো নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক পুরো ভাসানচর পরিদর্শন করেছেন। তিনি একাধিক মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়েছেন এবং ব্র্যাক ও প্রত্যাশী কর্তৃক পরিচালিত লাইভিহুড কার্যক্রম, বর্জব্যবস্থাপনা কার্যক্রম, সরকারী ২০ শয্যাবিশিষ্ট সরকারী হাসপাতাল এবং বিশ্বখাদ্য কর্মসূচী পরিচালিত ই-ভাউচার শপের কর্মসূচী পরিদর্শন করেন। তিনি সকল কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং ভাসানচর পরিপাটি ও থাকার উপযোগী বলে মন্তব্য করেন।

আরও পড়ুন