• ঢাকা
  • বুধবার, ২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৮ মার্চ, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ২৮ মার্চ, ২০২৪

জেলা জুড়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত

স্টাফ রিপোর্টার : যথাযোগ্য মর্যাদায় নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে জেলা জুড়ে সর্বত্র মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। মঙ্গলবার দিবসের শুরুতে জেলা শহরের শহিদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে পুস্পস্তবক অর্পন করেন জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমানের নেতৃতে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক জালাল উদ্দিন, জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার (এনএসআই) যুগ্মপরিচালক আবুতাহের মো. পারভেজ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট (এডিএম) তামান্না মাহমুদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মিল্টন রায়, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক(উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) শারমিন আরা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) অজিত দেব,সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আখিনূর জাহান নীলাসহ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও প্রশাসনের কর্মকর্তও কর্মচারীবৃন্দ।

পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে জেলা সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মো, বশির আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অর্থ) বিজয়া সেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম এন্ড অপস) মোহাম্মদ ইব্রাহিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো.মোর্তাহিন বিল্লাহসহ জেলা পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সদস্যবৃন্দ পুস্পত্ববক অর্পন করেন। জেলার সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার, জেলা আওয়ামী লীগ ও শহর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ পিন্টু , এলজিইডি নোয়াখালী তত্ত্বাবধায়ক কাজি গোলাম মোস্তফা ও নির্বাহী প্রকৌশলী আজহারুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিটের সাবেক কমান্ডার মোজাম্মেল হক মিলন, নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু নাছের মঞ্জু, সরকারি -বেসরকারি দপ্তর, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও পেশাজীবী সংগঠনের পক্ষ থেকে শহিদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিফলকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়েছে।

এ সময় সমবেত জনতা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় শোষণহীন, বঞ্চনাহীন, অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

পরে নোয়াখালী শহিদ ভুলু স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, জাতীয় সংগীত পরিবেশন, কুচকাওয়াজ, ছাত্র-ছাত্রীদের সমাবেশ, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও ডিসপ্লে প্রদর্শনীর উদ্বোধন ও সালাম গ্রহন করেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার। পরে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মহিলাদের অংশগ্রহনে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক আলোচনা সভা, জেলা শিশু একাডেমি কর্তৃক শিশুদের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও পুস্কার বিতরণ করা হয়। বিকালে শহিদ ভুলু স্টেডিয়ামে প্রীতি ফুটবল ও ভবিবল ম্যাচ জেলা প্রশাসন বনাম পৌরসভা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা একাদশের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়।

পরে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে বীর মুক্তিযোদ্ধা, শহিদ বীর মুক্তিযোদ্ধার পরিবারবর্গের সংবর্ধনা ও জতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ঐতিহাসিক নেতৃত্ব এবং দেশের উন্নয়ন বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মিল্টন রায় এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, জেলার সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো.মোর্তাহিন বিল্লাহ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিটের সাবেক কমান্ডার মোজাম্মেল হক মিলন,বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল কাসেম জিএস, বীর মুক্তিযোদ্ধা মমতাজুল করিম বাচ্চু ও নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু নাছের মঞ্জু। পরে মুক্তিযোদ্ধাদের উপহার ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

আরও পড়ুন

  • বিশেষ প্রতিবেদন এর আরও খবর