• ঢাকা
  • রবিবার, ১৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৮ এপ্রিল, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ৮ এপ্রিল, ২০২৪

ঝড়ে হাতিয়া উপজেলায় ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি, উড়ে গেছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান

উপজেলা প্রতিনিধি, হাতিয়া : দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় ঝড়ে ব্যপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সড়কের বিভিন্ন অংশে গাছ ভেঙে পড়েছে। এতে সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। বিচ্ছিন্ন রয়েছে বিদ্যুৎ সংযোগ। এছাড়া ঝড়ে উড়ে গেছে সোনাদিয়া নুরানি মডেল মাদরাসার ঘর।

রোববার (৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে বেলা ১১টা ৫ মিনিট পর্যন্ত ৩৫ মিনিট এ ঝড় স্থায়ী হয়। এতে বিভিন্ন এলাকা থেকে শতাধিক আধাপাকা বাড়ি বিধ্বস্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ সময় ব্যাপক বজ্রপাত হয়েছে।

সোনাদিয়া নুরানি মডেল মাদরাসার সভাপতি আবুল হাসেম বলেন, ঝড়ে আমাদের পুরো ঘর উড়ে গেছে। এই ঘরে চারটি ক্লাস নেওয়া হতো। এতে অন্তত দুই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। শিক্ষার্থীদের খোলা আকাশের নিচে পাঠদান করাতে হবে।

বুড়িরচর ইউনিয়নের সাইফুল ইসলাম নামের বাসিন্দা বলেন, আমার বসতঘরসহ অনেক বাড়িতে গাছ পড়েছে। আমার ঘরের অন্তত ৪০ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন এলাকায় সড়কে গাছ উপড়ে পড়েছে। এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রয়েছে। বিদ্যুৎ না থাকায় আমাদের মোবাইল নেটওয়ার্কের ভোগান্তিতে রয়েছে।
আবু বকর ছিদ্দিক নামের এক পথচারী বলেন, গাছ পড়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। বিদ্যুৎ সংযোগ নেই। আমরা বিষয়টি জানিয়েছি। বিদ্যুৎ বিভাগ যদি দ্রুত কাজ করে তাহলে আমরা বিদ্যুৎ পাব।

হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সুরাইয়া আক্তার লাকী বলেন, ঝড়ে ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণের জন্য কৃষি বিভাগ ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ঝড়ে সোনাদিয়া নুরানি মডেল মাদরাসার ঘরসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের ঘর উড়ে যাওয়ার খবর শুনেছি। ক্ষয়ক্ষতির হিসাব পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন

  • হাতিয়া এর আরও খবর