• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০২৩

কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাটে নির্বাচনী আমেজে আওয়ামী লীগের, ঘরছাড়া বিএনপি

এএইচএম মান্নান মুন্না, উপজেলা প্রতিনিধি, কোম্পানীগঞ্জ : দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে নোয়াখালী-৫ আসনে (কোম্পানীগঞ্জ – কবিরহাট) হাটে বাজারে গ্রামে পাড়া-মহল্লায় দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা। তারা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

তবে রাজনীতি আন্দোলন সংগ্রামে ও নির্বাচনী প্রচারে নেই বিএনপি। হামলা-মামলার ভয়ে আত্মগোপনে আছেন, মাঠে নেই নেতা-কর্মীরা। বিএনপির এক নেতা বলেন, আমরা এখন নির্বাচন নিয়ে ভাবছি না। এই সরকারের অধীনে কোনোভাবেই সুষ্ঠু নির্বাচন আশা করা যায় না। আমরা নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন চাই। এজন্য বিএনপি আন্দোলন-সংগ্রাম করে যাচ্ছে। যদি নির্দলীয় কোনো সরকারের অধীনে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন হয়, তখন নির্বাচনে যাওয়ার কথা ভাবা যাবে। গত ২৮ অক্টোবরের পর থেকে সরকার দলীয় নেতা কর্মী ও পুলিশের হয়রানির কারণে বিএনপির নেতা কর্মীরা এলাকা ছাড়া। যারা আছেন তারাও রাতে ঘরে ঘুমাতে পারেন না। তবে নেতা কর্মীরা নির্বাচন ঠেকাতে অনেকটা গোপনে প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

বসুরহাট পৌরসভা ৯ ওয়ার্ডের হাজী পাড়ার নুর উদ্দিন হেলাল’র অভিযোগ তার ছোট ভাই যুবদল নেতা সালা উদ্দিন সুমন দীর্ঘদিন ধরে ঘরবাড়ি ছাড়া গত বুধবার রাত ১১টায় হেলমেটপরা ২০-২৫ জন যুবক লাঠি নিয়ে বাড়ির ফটকের লোহার গেট ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে। কিন্তু লোহার কলাপসিবল গেইটে ডাবল তালা থাকার কারণে ঘরের ভিতরে ঢুকতে পারেনি। পরে তারা জানালার কাঁচ ভাঙচুর করে ১০ থেকে ১৫ মিনিট এক তাণ্ডব চালিয়ে নারী-পুরুষ ও শিশুদের মাঝে আতঙ্কের মধ্যে রেখে চলে যায়।

এদিকে নোয়াখালী- ৫ আসনে (কেম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আওয়ামী লীগ প্রার্থী ওবায়দুল কাদেরের এই আসন ধরে রাখতে ৭ জানুয়ারি নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন দলটি। দলীয় নেতা কর্মীরা আছেন নির্বাচনী আমেজে।

আওয়ামী লীগের এক নেতা বলেন, দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তফসিল ঘোষণার পর শনিবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট ) থেকে লড়তে মনোনয়নপত্র কিনেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এতে নেতাকর্মীর মধ্যে উৎসবের আমেজ তৈরি হয়েছে। এই ধারা ভোট শেষ না হওয়া পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। ওবায়দুল কাদের’র ছোট ভাই আব্দুল কাদের মির্জা নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে নিবিড়ভাবে দলের কাজ করে যাচ্ছেন। নির্বাচনি এলাকা গুছিয়ে নিয়েছেন।

এ আসনটি আওয়ামী লীগের ঘাঁটিতে পরিণত হয়েছে। আওয়ামী লীগের এই দুর্গে হানা দেওয়ার মত সাংগঠনিক শক্তি বিএনপি-জামাতের বিগত ১৫ বছরও ছিলনা, বর্তমানেও নেই। এবারও ওবায়দুল কাদের এ আসনে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে ভোট করবেন। ওবায়দুল কাদের’র জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলীয় নেতা কর্মীরা কাজ করবেন। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন বলে তারা আশা প্রকাশ করেন।

আরও পড়ুন

  • কবিরহাট এর আরও খবর