• ঢাকা
  • সোমবার, ২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৫ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর, ২০২৩

স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোটারদের পিটিয়ে মেরে ফেলার হুমকি আ.লীগ নেতার

উপজেলা প্রতিনিধি, সেনবাগ : স্বতন্ত্র প্রার্থীর ভোটারদের পিটিয়ে মেরে ফেলার হুমকি আ.লীগ নেতার স্বতন্ত্র প্রার্থীকে যারা ভোট দেবেন তাদের ধরে পিটিয়ে মেরে ফেলা দরকার বলে মন্তব্য করেছেন সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক সৌরভ হোসেন সুমন। এ-সংক্রান্ত ৩০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের বসন্তপুরে এক মতবিনিময় সভা চলাকালীন এ বক্তব্য ও হুমকি দেন সুমন। এসময় তিনি বলেন, এটা কী রকম আ.লীগ আমার মাথায় ধরে না। যারা বলবে আমি আ.লীগ দলের লোক স্বতন্ত্র ভোট করি, আপনারা নৌকায় ভোট দেবেন না, অন্য মার্কার স্বতন্ত্র প্রার্থীকে ভোট দেবেন, তাদের ধরে পিটিয়ে মেরে ফেলা দরকার।

এ বিষয়ে বুধবার (১৩ ডিসেম্বর) জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন এই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সহ-সভাপতি ও জেলা আ. লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক।

লিখিত অভিযোগে স্বতন্ত্র এ প্রার্থী বলেন, দলীয় সিদ্ধান্তের আলোকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আমি নির্বাচনী মাঠে রয়েছি। ১২ ডিসেম্বর বিকেল ৫টায় সেনবাগ থানার ১নং ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের বসন্তপুর গ্রামে বসন্তপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাতারপাইয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৌরব হোসেন সুমন নৌকার প্রার্থী মোরশেদ আলমের সমর্থনে এক মতবিনিময় সভা করেন। মতবিনিময় সভায় তিনি প্রকাশ্যে নৌকার বিরুদ্ধে স্বতন্ত্র ভোট করা দলীয় প্রার্থীকে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং পেটানোর হুমকি প্রদান করেন।

আমি তার প্রকাশ্য এই হুমকিতে জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। তার এই হুমকি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন পরিচালনায় বাধা এবং নির্বাচনী আচরণবিধির সুস্পষ্ট লঙ্ঘন। এমতাবস্থায় অবাধ, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের স্বার্থে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে আমলে নিয়ে যথাযথ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আ:লীগ নেতারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনে পছন্দের প্রার্থী বেছে নিতে দলের বঞ্চিত নেতাকর্মীদের জন্য স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচন করার সুযোগ করে দিয়েছেন। কিন্তু আমরা প্রকাশ্যে পছন্দের প্রার্থীর ভোট করতে পারছি না। নিয়মিত আমাদের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে আ. লীগ নেতারা। এবং আমাদের পদ পদবি থেকে বঞ্চিত করে নিষিদ্ধের হুমকিও দিচ্ছে। এতে রাজনৈতিক পরিবেশ নষ্ট হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

বক্তব্যটিকে স্লিপ অব টাং উল্লেখ করে এমন বক্তব্যের বিষয়ে সৌরভ হোসেন সুমন বলেন, আমি ঘরোয়া অনুষ্ঠানে পারিবারিক লোকদের সঙ্গে নৌকার মানুষ নৌকার বাইরে যেতে পারে না মর্মে এমন বক্তব্য দিয়েছি। এটা স্লিপ অব টাং। তবে কোনো সভা অথবা বড় অনুষ্ঠানে বলি নাই। যারা আওয়ামী লীগ করে তারাই আওয়ামী লীগ পরিচয় দেবে। অনেকে আওয়ামী লীগ করে কিন্তু ভোট করচে স্বতন্ত্রের। তাদের বিষয়ে এসব কথা বলেছি।

এ বিষয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান বলেন, আমি এমন একটি অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরও পড়ুন

  • সেনবাগ এর আরও খবর