• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর, ২০২৩
সর্বশেষ আপডেট : ১৯ ডিসেম্বর, ২০২৩

বৈধ অভিবাসনে নোয়াখালী জেলা ষষ্ঠ

নিজন্ব প্রতিবেদক : বৈধভাবে অভিবাসনে ২০২৩ সালে নোয়াখালী জেলা ষষ্ঠ স্থান অর্জন করেছে। এবছর ৪১ হাজার ১৮১ জন বৈধ ভাবে বিদেশ পাড়ি দিয়েছেন। মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) বিকেলে আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবসের আলোচনা সভায় এ তথ্য তুলে ধরেন জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহকারী পরিচালক আবু ছালেক।

তিনি আরও বলেন, ২০০৫ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বৈধভাবে অভিবাসীর সংখ্যা নোয়াখালী জেলায় ৩ লাখ ৪১ হাজার ৮১২ জন। ২০২০ সালে ৭ হাজার ১৫৬ জন। ২০২১ সালে ২৫ হাজার ৮৯৫ জন। ২০২২ সালে ৪৮ হাজার ৩৯৩ জন।২০২৩ সালে ৪১ হাজার ১৮১ জন বৈধভাবে অভিবাসন হওয়ায় নোয়াখালী জেলা ষষ্ঠ হয়েছে।

আবু ছালেক আরও বলেন, ২০২৩ সালের নভেম্বর পর্যন্ত মোট আর্থিক অনুদানের তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়েছে ৪৩০ টি। ২০২২ সালে মোট আর্থিক অনুদানের তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়েছে ৫৬৫ টি। ২০২১ সালে মোট আর্থিক অনুদানের তদন্ত প্রতিবেদন প্রেরণ করা হয়েছে ৫০৬ টি। বৈধ অভিবাসনের অন্যতম কারণ গুলো হলো,ফ্রি ভিসা নিয়ে বিদেশগমন বন্ধ করা, জনসচেতনতায় বাজেট না থাকা, অধিক সংখ্যাক দক্ষ জনশক্তি প্রেরণ, অনিরাপদ অভিবাসান রোধ ও ব্যাক্তি পর্যায়ে জনসচেতনতা তৈরী।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) শারমিন আরা বলেন, অবৈধ অভিবাসন বন্ধ না হলে দক্ষ বৈধ অভিবাসন বাড়বে না। আর অবৈধ অভিবাসন বৈধ অভিবাসনের জন্য হুমকি। কিছু কিছু সফল গল্প আছে বলে মানুষ অবৈধ অভিবাসনে যাচ্ছে। সেই গল্প গুলোই প্রচার হচ্ছে। যদিও এখানে সব থেকে বেশি ঝুঁকি। প্রাণ হারাতেও হচ্ছে। কিন্তু আমরা ক্ষতি গুলো জানতে চাই না। কেবল চাই সফলতা।

অনুষ্ঠানে সাবেক অধ্যাপক কাজী রফিক উল্লাহ, ভুলুয়া ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবু জাফর মোহাম্মদ হারুন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর নোয়াখালীর জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা মুহাম্মদ শহীদুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

  • . এর আরও খবর