• ঢাকা
  • সোমবার, ১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

বড় ভাইকে হত্যার দায়ে ছোট ভাইয়ের যাবজ্জীবন

উপজেলা প্রতিনিধি, বেগমগঞ্জ : বেগমগঞ্জ উপজেলায় ক্রয়কৃত জমির দলিল দেখতে চাওয়ায় প্রবাসী বড় ভাই মোমিন উল্যাহকে (৫০) হত্যার ঘটনায় ৮ বছর পর ছোট ভাই হাফিজ উল্যাহকে (৪৫) যাবজ্জীবন দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নোয়াখালী বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এএনএম মোর্শেদ খান এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত হাফিজ উল্যাহ বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের কোটরা মহব্বতপুর গ্রামের মৃত হাজী নূরুল হকের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় হাফিজ উল্যাহ আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মোমিন উল্যাহ সৌদি প্রবাসী ছিলেন। তিনি প্রবাসী থাকাকালীন ছোট ভাই হাফিজ উল্যাহর মাধ্যমে জমি ক্রয় করেন। ২০১৬ সালের ৯ মার্চ দুপুরে ছোট ভাইয়ের কাছে জমির দলিল দেখতে চাইলে বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে ছোট ভাই শাবল দিয়ে বড় ভাইয়ের মাথায় আঘাত করে এবং ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। পরেরদিন স্ত্রী ফেরদাউস বেগম (৩৫) বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একটি হত্যামামলা দায়ের করেন। প্রায় ৮ বছর পর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ মামলার রায় দেন।

মামলার বাদী ফেরদাউস বেগম বলেন, আমার স্বামীকে মাথায় শাবল দিয়ে আঘাত করলে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয় এবং মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নিতে গিয়েও নেওয়া হয় নাই। মামলার রায়ে আমি সন্তুষ্ট।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মো. এমদাদ হোসেন কৈশোর রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ঘটনাটি খুবই হৃদয়বিদারক। দীর্ঘ আট বছরে ১০ জন সাক্ষী আদালতে সাক্ষ্য প্রদান করেছেন। আমরা আশা করেছি মহামান্য আদালত মৃত্যুদণ্ড প্রদান করবেন। তারপরও আমরা রায়ে সন্তুষ্ট। মামলার রায়ে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এর ফলে অপরাধ করে পার পাওয়ার সুযোগ নেই জেনে সমাজে অপরাধ প্রবণতা কমে আসবে।

আরও পড়ুন

  • . এর আরও খবর