• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৪ জুলাই, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ৪ জুলাই, ২০২৪

‘প্রত্যয়’ বাতিলে শিক্ষকদের আন্দোলনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের

নোয়াখালীর কথা ডেস্ক: বৈষম্যমূলক পেনশন স্কীম ‘প্রত্যয়’ বাতিল করে স্বতন্ত্র বেতন কাঠামো চালুর দাবিতে সারাদেশে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের চলমান আন্দোলনে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সংহতি প্রকাশ।

আজ বৃহস্পতিবার নতুন পেনশন স্কীম ‘প্রত্যয়’ বাতিলের আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে এক যৌথ বিবৃতিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি সালমান সিদ্দিকী ও সাধারণ সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ বলেন, ২০২৪-২০২৫ অর্থবছর থেকে সারাদেশে সকল স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জন্য বৈষম্যমূলক প্রত্যয় স্কীমের বাস্তবায়নের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। ঘোষণা অনুযায়ী ২০২৪ সালের ১ জুলাই থেকে নিয়োগপ্রাপ্ত স পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের এ স্কীমের আওতায় আনা হবে। নানাভাবে আর্থিক সুবিধা কমানো হয়েছে প্রত্যয় স্কীমে। পূর্বে পেনশন স্কীমে গ্র্যাচুইটি বাবদ যে এককালীন টাকা দেয়া হতো তা বাতিল করা হয়েছে। চাকরীকালীন মাসিক বেতনের ১০% কেটে রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পূর্বের পেনশন স্কীমে মাসিক ৫% ইনক্রিমেন্টের ব্যবস্থা থাকলেও প্রত্যয় স্কীমে কোন ইনক্রিমেন্ট থাকবে না। পূর্বে চাকরীজীর নমিনি আজীবন পেনশন পেলেও নতুন স্কীমে তা ৭৫ বছর পর্যন্ত সীমিত রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এছাড়াও নতুন স্কীমে এলপিআর, উৎসব ভাতা নিয়ে সুনির্দিষ্ট কোন বক্তব্য নেই। নতুন স্কীমের সকল সিদ্ধান্তই বৈষম্যমূলক। তাছাড়া এই স্কীম বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বায়ত্তশাসনের ধারণার সাথে সাংঘর্ষিক। আমরা অবিলম্বে এই বৈষম্যমূলক প্রত্যয় স্কীম বাতিলের দাবি করছি।

তারা আরো বলেন, “বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পর্যাপ্ত অর্থ বরাদ্দ নেই। গবেষণায় বরাদ্দ যৎসামান্য। সারাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নানা রকম সংকটে জরাজীর্ণ। প্রয়োজনের তুলনায় শিক্ষকদের বেতনও সীমিত। স্বতন্ত্র বেতন ও মর্যাদার জন্যও শিক্ষকদের আন্দোলন করতে হয়েছে। এর ওপর নতুন পেনশন স্কীম উচ্চ শিক্ষার সংকটকে আরো ঘনীভূত করবে। প্রত্যয় স্কীম বাতিলের দাবিতে দীর্ঘ দিন ধরে শিক্ষকদের আন্দোলন চলমান থাকলেও সরকার তা আমলে নিচ্ছে না। সরকার এখন পর্যন্ত কোন কার্যকর পদক্ষেপ নেয়নি।

অন্যদিকে ক্লাস পরীক্ষা বন্ধ থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার সামগ্রিক পরিবেশ ব্যাহত হচ্ছে। অবিলম্বে ‘প্রত্যয়’ স্কীম বাতিল করে শিক্ষকদের জন্য সতন্ত্র বেতন কাঠামো চালু করে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার স্বাভাবিক পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই।

আরও পড়ুন