• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ১৪ মার্চ, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ১৪ মার্চ, ২০২৪

সুবর্ণচরে এমপি একরাম চৌধুরীকে গণসংবর্ধনা

উপজেলা প্রতিনিধি, সুবর্ণচর : নোয়াখালী-৪ (সদর-সুবর্ণচর) আসনের আওয়ামী লঘি থেকে টানা চার বার নির্বাচিত এমপি একরামুল করিম চৌধুরীকে সুবর্ণচরে গণসংবর্ধনা প্রদান করে এলাকাবাসি। এ উপলক্ষ্যে সোমবার ১১ মার্চ সুবর্ণচর উপজেলার ভূইয়ার হাট বিএডিসি মাঠে এক বিশাল সমাবেশে আয়োজন করা হয়। সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এমপি একরামুল করিম চৌধুরী। একই সাথে সুবর্ণচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হচ্ছেন এপি পুত্র সাবাব চৌধুরীর। তার সমর্থনে মেজবানের আয়োজন করা হয়েছে। মেজবানে প্রায় ৪০ হাজার লোকের সমাগম ঘটে। সকাল ১১টা থেকে বিকেল পর্যন্ত চলে এ মেজবান।

এর আগে সমাবেশে সুবর্ণচর উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি, দলীয় নেতাকর্মীরা তাদের প্রাণ প্রিয় নেতা একরাম চৌধুরীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ।
একরাম চৌধুরী উপস্থিত জনগণের উদ্দেশ্যে বলেন, এখানে অনেকে ভূমিহীনের কথা বলে সরকারের খাস জায়গা দখল করেন। আমি থাকতে এটা আর করতে দেওয়া হবে না। আগে নোব্য চোরা সহ বিভিন্ন ভূমিদস্যূ ও জলদস্যূ বাহিনীর গর্জন ছিলো। এখন সফি বাতান্না নাম শুনলে নাকি সবাই ডরান। একরাম চৌধুরীকে দেখলে আপনারা ডরান না।এ চরাঞ্চল থেকে বাহিনী উচ্ছেদ করা হবে। কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, সাবাব চৌধুরীকে আপনার গড়ে তুলুন। আমি তাকে আপনাদের কাছে দিয়ে গেলাম। সে যেন বলতে পারে আমি সুবর্ণচরের লোক। ওর জন্য আপনার দোয়া করবেন।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, এমপি পুত্র সাবাব চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হানিফ চৌধুরী, জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক একরামুল হক বিপ্লব, চরবাটা ইউনিয়নে আমিনুল ইসলাম রাজিব, চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নে বেলায়েত হোসেন ও চরওয়াপদা ইউনিয়নে আব্দুল মান্নান ভূঁইয়া, চরক্লার্ক ইউনিয়নে এভোকেট আবুল বাশার চৌধুরী, চরবাটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোজাম্মেলসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা।

স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, সুবর্ণচর উপজেলার আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ সর্বস্ত লোকের জন্য ৫০টি গরু জবাই করা হয়েছে হিন্দু পরিবারের জন্য আলাদা মেজবানের আয়োজন করা হয়েছে।

আরও পড়ুন