• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
প্রকাশিত: ৭ জুলাই, ২০২৪
সর্বশেষ আপডেট : ৭ জুলাই, ২০২৪

কোটা পদ্ধতি বাতিলের দাবিতে নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি, নোবিপ্রবি: সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিল ও মেধাভিত্তিক নিয়োগের ২০১৮ সালের পরিপত্র বহাল রাখার দাবিতে সারাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সমন্বয় রেখে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

শনিবার (৬ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ থেকে মিছিল শুরু করে, লাইব্রেরী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল, গ্যারেজ, শান্তি নিকেতন, ভাষা শহীদ আব্দুস সালাম হল প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনার এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা সোনাপুর-সুবর্ণচর রাস্তা আটকিয়ে অবরোধ করে রাখে।
এ সময় শিক্ষার্থীরা কোটার বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্লোগান দেন। বৈষম্যের ঠাঁই নাই আমার সোনার বাংলায়, বঙ্গবন্ধুর বাংলায় বৈষম্যের ঠাঁই নাই, জেগেছে রে জেগেছে ছাত্র সমাজ জেগেছে, একাত্তরের হাতিয়ার গর্জে উঠো আরেকবার, কোটা না মেধা! মেধা মেধা স্লোগানে উত্তেজিত হয়ে উঠে ক্যাম্পাস।

শিক্ষা বিভাগের ১৫ তম ব্যাচের শিক্ষার্থী বলেন, কোটা ব্যবস্থা মেধার অবমূল্যায়ন করছে, অনার্স শেষ করে শিক্ষার্থীরা যখন চাকরীর বাজারে আসে তখন চাকরি না পেয়ে হতাশায় আত্মাহত্যা করে। পড়াশোনায় পিছিয়ে পরে কোটা দিয়ে যখন কেউ উচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে যায় তখন ঐ দেশের ধ্বংস অনিবার্য।

আন্দোলন কারী আরেক শিক্ষার্থী বলেন, ১৯৭১ সালে ১৪ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী যেমন আমাদের বুদ্ধিজীবীদের হত্যা করেছিল তেমনি ভাবে কোটা আমাদের মানসিকভাবে হত্যা করছে।

সমুদ্র বিজ্ঞান বিভাগের ১৭ ব্যাচের এক নারী শিক্ষার্থী বলেন, সরকার একটা নির্দিষ্ট শ্রেণীর মানুষকে বেশি সুবিধা দিচ্ছে। আমি ব্যাক্তিগতভাবে নারীদের কোটা চাই না। পুরুষদের সাথে পরিশ্রম করে আমাদের যোগ্যতা প্রমাণ করতে চাই। সুবিধা বঞ্চিতদের জন্য কোটা রাখার আহ্বান জানান তিনি।

নোবিপ্রবির কোটা আন্দোলনের সংগঠকটা বলেন পরবর্তী তাদের কর্মসূচি জানিয়ে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন